ভারত-পাকিস্তান পাল্টাপাল্টি কূটনীতিক বহিষ্কারে

0
60

সীমান্তবিরোধ নিয়ে প্রতিবেশী চীন ও নেপালের সঙ্গে ভারতের উত্তেজনা বেড়েছে। এর মধ্যে আরেক প্রতিবেশী পাকিস্তানের সঙ্গে নতুন করে কূটনৈতিক বিরোধ সৃষ্টি হয়েছে দেশটির। ভারত সরকার নয়াদিল্লিতে পাকিস্তান হাইকমিশনের অর্ধেক কর্মীকে বহিষ্কারের ঘোষণা দেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর গত মঙ্গলবার পাল্টা একই ধরনের পদক্ষেপ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে পাকিস্তান।

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, গুপ্তচরবৃত্তিতে লিপ্ত এবং সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোর সঙ্গে লেনদেনের অভিযোগ রয়েছে নয়াদিল্লিতে পাকিস্তানের হাইকমিশনের কর্মীদের বিরুদ্ধে। এটা কূটনৈতিক সম্পর্কের আন্তর্জাতিক নীতিমালার চরম লঙ্ঘন। তাই কমিশনের অর্ধেক কর্মীকে বহিষ্কার করছে ভারত। পাকিস্তানে ভারতের হাইকমিশনের কর্মীর সংখ্যাও অর্ধেক কমিয়ে আনা হবে।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, যেহেতু নয়াদিল্লিতে পাকিস্তানের হাইকমিশনের কর্মীর সংখ্যা ৫০ শতাংশ কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত সরকার, তাই পাকিস্তানের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্সকে ডেকে এনে এক সপ্তাহের মধ্যে ওই সিদ্ধান্ত কার্যকর করার কথা বলা হয়েছে।

তবে ভারতের ওই অভিযোগকে ‘পুরোপুরি ভিত্তিহীন’ বলে উড়িয়ে দিয়েছে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে মন্ত্রণালয়টি জানায়, দিল্লিতে পাকিস্তানের হাইকমিশনের কর্মীরা কূটনৈতিক নীতিমালা মেনেই দায়িত্ব পালন করছিলেন। তারপরও নয়াদিল্লি এমন ব্যবস্থা নেওয়ায় পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে তারাও ভারতীয় হাইকমিশনের অর্ধেক কর্মীকে বহিষ্কার করবে। নয়াদিল্লির সিদ্ধান্তে নয়, ইসলামাবাদে ভারতীয় হাইকমিশনের কর্মী সংখ্যা অর্ধেকে কমিয়ে আনার নির্দেশ দিয়েছে ইসলামাবাদ।

স্বাধীনতার পর থেকেই পারমাণবিক শক্তিধর প্রতিদ্বন্দ্বী এই প্রতিবেশী দেশ দুটির মধ্যে সম্পর্কের টানাপোড়েন এবং পাল্টাপাল্টি কূটনীতিক বহিষ্কারের ঘটনা নিয়মিতই ঘটে। অধিকাংশ সময় এসব বহিষ্কারের পেছনে থাকে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ। সম্প্রতি নয়াদিল্লিতে পাকিস্তানের হাইকমিশনে কর্মরত দুই পাকিস্তানিকে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে দেশে ফেরত পাঠানো হয়। তাঁরা দুজনই ভিসা বিভাগে কর্মরত ছিলেন। পাল্টা পদক্ষেপ হিসেবে ১৬ জুন ইসলামাবাদে ভারতীয় হাইকমিশনের দুই কর্মীকে গ্রেপ্তার করে পাকিস্তানের পুলিশ। পরে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় একটি বিবৃতিতে জানায়, একটি সড়ক দুর্ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ওই দুই ভারতীয় কর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এই প্রসঙ্গ টেনে ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত সরকারের অনিষ্টকর প্রচারণা ভারতীয় হাইকমিশনের কর্মকর্তাদের অবৈধ কার্যক্রমকে ঢাকতে পারবে না।

পাল্টাপাল্টি হাইকমিশনের কর্মী বহিষ্কারের ঘোষণায় ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে নতুন করে উত্তেজনা বেড়েছে। ফলে এই অঞ্চল নতুন করে অশান্ত হয়ে উঠতে পারে বলে আশঙ্কা বিশ্লেষকদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here